মঠবাড়িয়ায় মুক্তিযোদ্ধার জমি দখলের সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ইউপি চেয়ারম্যানের চাঁদা দাবির মামলা

মঠবাড়িয়া সংবাদদাতা :
পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক মুক্তিযোদ্ধার জমি জবর-দখলের অভিযোগ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ করায় ইসমাইল হাওলাদার নামে স্থানীয় সাংবাদিকের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি ও ১০ লাখ টাকার মানহানী মামলা দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার দাউদখালী ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক রাহাত বাদি হয়ে মঠবাড়িয়ার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে মামলাটি দায়ের করেন। বিজ্ঞ বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে মঠবাড়িয়া থানার ওসিকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

মামলায় অভিযোগ আনা হয়, মুক্তিযোদ্ধার জমি জবরদখলের সংবাদটি ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক রাহাত এর দধিভাঙ্গা গ্রামে বাড়িতে গিয়ে ওই সংবাটি প্রকাশ না করার শর্তে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করা হয়। এতে ইউপি চেয়ারম্যান অপরগতা প্রকাশ করায় সাংবাদিক ইসমাইল মিত্যা তথ্য সরবরাহ করে তার বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করেন। এতে তার ১০ লাখ টাকার মানহানি ঘটেছে বলে মামলায় উল্লেখ করেন।

এ বিষয়ে সাংবাদিক ইসমাইল হোসেন তার বিরুদ্ধে চাঁদা দাবির অভিযোগ ভিত্তিহীন দাবি করে বলেন, উপজেলার দধিভাঙ্গা বাজারের মুক্তিযোদ্ধা আবদুল লতিফ মোল্লার ডিসিআরকৃত জমি গত ২২ মে রাতে ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক রাহাত খান তার দলবল দিয়ে দখল করে নেয় । এই মর্মে ওই মুক্তিযোদ্ধা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। ওই অভযিোগরে সূত্র ধরে সরজেমনিে গয়িে জমি দখলরে সত্যতা পাওয়া যায়। এ ব্যাপারে ইউপি চয়োরম্যানরে বক্তব্য নিতে গেলে তিনি জমি দখলরে কথা স্বীকার করে বলনে, ‘আমি ওই জমি দখল করেছি, সংবাদ প্রকাশ করে দাও। জেল ফাঁস যা হবার হবে। উক্ত সংবাদ গত ২৫ মে বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশতি হওয়ায় ক্ষপ্তি হয়ে ইউপি চয়োরম্যান আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ এনে এ মামলা দায়ের করেছেন।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook
YouTube
error: Content is protected !!