সাতক্ষীরার সাবেক ডিসি ও ইউএনওর ৩ মাসের জেল।

আদালতের আদেশ অমান্য করায় সাতক্ষীরার সাবেক জেলা প্রশাসক আবুল কাসেম মো. মহিউদ্দিন, আশাশুনির সাবেক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুষমা সুলতানা ও আশাশুনি সদরের সহকারী ভূমি কর্মকর্তা কামাল হোসেনকে তিন মাস করে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে আশাশুনি আদালতের সিনিয়র সহকারী জজ সাবরিনা চৌধুরী এ রায় দেন।

জেলা জজ আদালতের প্রশাসনিক কর্মকর্তা আবু সুফিয়ান রায়ের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, মিস কেস ১৩/২০১৭ থেকে উদ্ভুত দেওয়ানি ৬০/২০১৭ এর এক নির্দেশে ২০১৭ সালের ২৬ জুলাই আদালত এক একর ৬৮ শতাংশ জমির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। বাদী ননী বালা হালদারের আবেদনের প্রেক্ষিতে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

অথচ জেলা প্রশাসক ও ইউএনও’র পরস্পরের যোগসাজশে ওই জমিতে বিবাদী পক্ষকে যেতে সহায়তা করেন। এতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্যের ঘটনা ঘটে।

মঙ্গলবার এ বিষয়ে একটি দীর্ঘ শুনানি শেষে সিনিয়র সহকারি জজ ( আশাশুনি আদালত ) তাদের তিনজনকে তিন মাসের কারাদণ্ড দেন। তাদেরকে আগামী এক মাসের মধ্যে সাতক্ষীরার জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেওয়া হয়। এই আদেশ লঙ্ঘন করলে তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হবে বলেও জানিয়েছেন আদালত। সিভিল প্রসিডিউরের ৩৯ আদেশ ২(৩) রুল এর বিধানমতে দোষী সাব্যস্ত করে তাদের প্রত্যেককে তিন মাসের দেওয়ানি কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

জানা গেছে, গত ২৬ জুলাই ২০১৬ থেকে ২০১৮ সালের ৬ মার্চ পর্যন্ত সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসকের দায়িত্বে ছিলেন আবুল কাসেম মো. মহিউদ্দিন। বর্তমানে তিনি বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব। অপরদিকে আশাশুনির সাবেক উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুষমা সুলতানা বর্তমানে নরসিংদীর এডিসি হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook
YouTube
error: Content is protected !!