মঠবাড়িয়ায় অবৈধ গর্ভপাতে কিশোরীর মৃত্যু,থানায় মামলা,গ্রাম্য চিকিৎসক গ্রেফতার

মঠবাড়িয়া সংবাদদাতা :
পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় অবৈধ গর্ভপাতে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে হেলেনা আক্তার (১৬) নামের এক কিশোরীর মৃত্যু হয়েছে। পুলিশ শুক্রবার রাতে উপজেলার টিয়ারখালী গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে ওই কিশোরীর লাশ উদ্ধার করে শনিবার সাকালে পিরোজপুর জেলা মর্গে পাঠিয়েছে। এ ঘটনায় ওই কিশোরীর দিনমজুর বাবা আ. কুদ্দুছ মুন্সী বাদী হয়ে ৫ জনকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করলে শনিবার দুপুরে পুলিশ গ্রাম্য চিকিৎসক আলমগীর হোসেনকে (৪০) গ্রেফতার করেছে ।

গ্রেফতারকৃত চিকিৎসক দক্ষিন ডৌয়াতলা গ্রামের হাসেন আলী হাওলাদারের ছেলে।

মামলা সূত্রে জানাগেছে, গত ২৮ নভেম্বর উপজেলার টিয়ারখালী গ্রামের মজনু হাওলাদারের ছেলে হানিফ হাওলাদার প্রতিবেশী কিশোরী হেলেনা আক্তারকে নিজ বাড়িতে ডেকে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। লোকলজ্জার ভয়ে মেয়েটি ঘটনাটি গোপন রাখে। পরবর্তীতে মেয়েটির Ĺতু¯্রাব বন্ধ হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে জানাজানি হলে অভিযুক্ত ধর্ষক ও তার মা জাহানারা বেগম মেয়েটিকে নিয়ে পাশর্^বর্তী বামনা উপজেলার দক্ষিন ডৌয়াতলা মদিনা বাজারে আলিফ মেডিকেল হলের মো. আলমগীর হাওলাদার নামের এক গ্রাম্য ডাক্তারের মাধ্যমে চিকিৎসা করান। এতে মেয়েটির অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ শুরু হয়। পরে মেয়েটির অবস্থা গুরুতর হলে স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য খলিলুর রহমান ইরান ও নুরুন্নবী মুসুল্লীর পরামর্শে গত ৪ জানুয়ারি মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। সেখানে অবস্থার অবনতি ঘটলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বরিশাল শেরে-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানাস্তর করেন। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ২৮ ফেব্রæয়ারি শুক্রবার দিবাগত ভোর রাতে মেয়েটির মৃত্যু হয়।

এ বিষয় মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শওকাত আনোয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বাদী পক্ষ ঘটনাটি আড়াল করার চেস্টা করেছিল। পরে তদন্ত করে ভুক্তভোগী পরিবারটিকে আইনি সহায়তা দিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পিরোজপুর জেলা মর্গে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্ত আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook
YouTube
error: Content is protected !!