আজ মঠবাড়িয়ায় ঐতিহাসিক সূর্য্যমণি গণহত্যা দিবস

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) সংবাদদাতা
১৯৭১-এ মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে এই দিনে ভোর রাতে উপজেলার আঙ্গুলকাটা গ্রামের সূর্যমণি এলাকায় ২৫ হিন্দু বাঙালীকে স্থানীয় রাজাকার বাহিনী নির্বিচারে গুলি করে নির্মম ভাবে হত্যা করে। সূর্য্যমণি গণহত্যা দিবস উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ এবং ওই ২৫ শহীদ পরিবারের সদস্য ও স্বজনরা শোকযাত্রা ও সূর্য্যমণি বেড়িবাঁধে শহীদ বেদীতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে স্বরণ সভার আয়োজন করেছেন।

শহীদ পরিবার সূত্রে জানাগেছে, ১৯৭১ সালের ৬ অক্টোবর ভোর রাতে ৫০/৬০ জনের একটি রাজাকার বাহিনীর দল গ্রামে হানা দিয়ে ব্যপক ধরপাকড় ও লুটপাট করে হিন্দু অধ্যুষিত আঙ্গুলকাটা গ্রামের মিস্ত্রী বাড়ি, মাঝি বাড়ি, হালদার বাড়ি, পাইক বাড়ি, মন্ডল বাড়ি, থেকে ৩৭ জন হিন্দুদের ভোর রাতে বাড়ি থেকে ধরে এনে তাঁদের মধ্যে ৭ জনকে রাতভর থানায় আটক রেখে অমানুষিক নির্যাতন চালায় বাকী ৩০ জনকে মঠবাড়িয়া শহর হতে আড়াই কিলোটিার দূরে সূর্য্যমণি বেড়িবাঁধ সংলগ্ন খালের পাড়ে এক লাইনে দাঁড় করিয়ে নির্বিচারে গুলি করে হত্যা করে। এ সময় ভাগ্যক্রমে গুলি খেয়েও ৫ জন বেঁচে গেলেও বাকী ২৫ জন ঘটনাস্থলেই শহীদ হন।

উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সাবেক কমান্ডার মো. বাচ্চু মিয়া আকন বলেন, স্বাধীনতার এত বছর পেড়িয়ে গেলেও ওই শহীদদের স্বীকৃতি না পাওয়াটা দুর্ভাগ্যজনক। শহীদদের এ জীবনদানের স্বীকৃতি ও সূর্য্যমণি বধ্যভূমিতে একটি স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণের জন্য সকল মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষ হতে সরকারের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook
YouTube
error: Content is protected !!