মঠবাড়িয়ায় শহীদ নূর হোসেন এর পৈত্রিক ভিটায় স্মৃতি রক্ষার দাবি

মঠবাড়িয়া সংবাদদাতা >>
গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনে শহীদ নূর হোসেন এর পৈত্রিক ভিটায় স্মৃতি রক্ষার দাবি জানিয়েছেন স্বজন ও গ্রামবাসিরা। স্বৈরাচারবিরোধি আন্দোলনে এই দিন (১০ নভেম্বর) জীবনদানকারী শহীদ নূর হোসেনের জন্ম ভিটা পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার নিভৃত পল্লী সাপলেজা ইউনিয়নের ঝাঁটিবুনীয়া গ্রামে।

১৯৮৭ সালের এই উত্তাল দিনে স্বৈরশাসনের বিরুদ্ধে বুকে পীঠে স্বৈরচার নিপাত যাক, গণতন্ত্র মুক্তি পাক লিখে প্রতিবাদে অংশ নেন যুবক নূর হোসেন। সেদিন স্বৈরাচারের সশস্ত্র বাহিনী জনতার প্রতিবাদ মিছিলে নির্বচারে গুলিতে শহীদ হন নূর হোসেন ।

স্থানীয় তরুণরা মিলে নির্মাণ করছেন শহীদ নূর হোসেনের ওপর একটি প্রামান্য চলচ্চিত্র। শহীদ নূর হোসেন দিবসে রবিবার তাঁর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, নূর হোসেনের স্মৃতি রক্ষার দাবিতে শোকযাত্রা,স্মারকলিপি পেশ, নূর হোসেনের পৈত্রিক ভিটায় ফুল ও ফলদ গাছের চারা রোপন, মিলাদ ও নূর হোসেনের ওপর নির্মিত ডকু ফিল্ম প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে।

পৈত্রিক এ ভিটায় তাঁর স্মৃতি সুরক্ষায় স্থানীয় তরুণ ও গ্রাম বাসিরা মঠবাড়িয়া শহরে থানাপাড়া তিন রাস্তার মোড় শহীদ নূর হোসেন চত্বর এবং ওই গ্রামের বাজারটির নাম নূরের হাট নাম করনের দাবি করেছেন।

শহীদ নূর হোসেন দিবস পালন এর প্রধান সমন্বয়কারি অন্যতম উদ্যোক্তা দেবদাস মজুমদার বলেন, আমরা গর্বিত যে শহীদ নূর হোসেন আমাদের এ জনপদের কৃতি সন্তান। তারুণ্যের অহংকার। বাংলার অধিকার আদায়ে যুগে যুগে এমন সাহসী তরুণরাই বুকের রক্ত দিয়েছে। শহীদ নূর হোসেনের স্মৃতিবিজরিত মঠবাড়িয়ায় স্মৃতি রক্ষার দাবি সকল স্তরের মানুষের।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook
YouTube
error: Content is protected !!