মঠবাড়িয়ায় প্রাইভেট শিক্ষক কর্তৃক স্কুলছাত্রীকে বেত্রাঘাতে আহত করার অভিযোগ

মঠবাড়িয়া সংবাদদাতা >>
পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় মালিহা আক্তার নামে পঞ্চম শ্রেণী পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রীকে প্রাইভেট শিক্ষক বেত্রাঘাতে আহত করার অভিযোগ উঠেছে । শহরের ৫৬ নম্বর মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক শহীদুল ইসলাম গত শুক্রবার শহরের নিউমার্কেট মহল্লায় তার বাসায় প্রাইভেট পড়ানোর সময় ওই স্কুল ছাত্রীকে বেত্রাঘাতে আহতসহ মানসিক নির্যাতনের করেছেন বলে তার পরিবার অভিযোগ করেছেন। এ ঘটনায় ভূক্তভোগি ছাত্রীর বাবা কলেজ শিক্ষক মাহাবুবুর রহমান শনিবার বিকালে এর প্রতিকার চেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সুত্রে জানাগেছে, মঠবাড়িয়া পৌরশহরের ৫৬নম্বর মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক শহিদুল ইসলামের কাছে গত শুক্রবার সকালে প্রাইভেট পড়ছিলো । এসময় ওই প্রাইভেট শিক্ষক স্কুল ছাত্রীকে ৫টি আংক কষতে দেন। ওই ছাত্রীর ৫টির অংকের মধ্যে একটি অংক সঠিক না হওয়ায় শিক্ষক ক্ষিপ্ত হয়ে এলোপাথারী বেত্রাঘাত করে আহত করে গালমন্দ করেন। এসময় স্কুল ছাত্রী মালিহাকে বেত্রাঘাতের কথা বাসায় না বলার জন্য স্বাসিয়ে দেন ওই শিক্ষক।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক মো. শহীদুল ইসলামের মোবাইল ফোনে কয়েক দফা কল দিলেও তার ফোন সেট বন্ধ পাওয়া যায়।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক মাইনুল ইসলাম এ অভিযোগর সত্যতা স্বীকার করে বলেন, অভিযোগ পেয়ে বিষয়টি উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে অবহিত করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জিএম সরফরাজ বলেন, শিক্ষক কর্তৃক শিক্ষার্থীকে বেত্রাঘাতের অভিযোগ পেয়েছি। জরুরী সভার কাজে পিরোজপুর জেলা সদরে থাকায় সোমবার (আজ) এ বিষয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook
YouTube
error: Content is protected !!