মঠবাড়িয়ায় গৃহবধূ কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা, স্বামীসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

ঠবাড়িয়া প্রতিনিধি :
পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় শাহীনুর বেগম(২২) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা চেষ্টার আহত করার অভিযোগে স্বামী,শ^শুর ও শাশুড়িসহ ৫জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। আহত গৃহবধূ বর্তমানে গত দুই দিন ধরে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধিন রয়েছেন। এ ঘটনায় নির্যাতিত গৃহবধূর বড় ভাই মো. নাছির উদ্দিন বেপারী বাদি হয়ে বুধবার দিনগত রাতে ৫জন কে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেছেন।
অভিযুক্তরা হলেন, আহত গৃহবধূ শাহীনুরের স্বামী উপজেলার ফুলঝুড়ি গ্রামের সোলায়মান শরীফ(২৩), দেবর জব্বার শরীফ(২১), রহিম শরীফ(১৯), শ^শুর ফজলুল হক শরীফ(৫০) ও শ^াশুড়ি সুফিয়া বেগম(৫০)।
থানা ও আহত গৃহবধূর পরিবার সূত্রে জানাগেছে, মঠবাড়িয়া সদর ইউনিয়নের মৃত শাহজাহান বেপারীর মেয়ে গার্মেন্ট কর্মী শাহীনুর বেগমের সাথে একই উপজেলার ধানীসাফা ইউনিয়নের ফুলঝুড়ি গ্রামের ফজলুল হক শরীফের ছেলে সোলায়মান শরীফের সাথে ২০১৭ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর মাসে পারিবারিক সিদ্ধান্তে বিয়ে হয়। বিয়ের সময় শাহীনুরের পরিবার লক্ষাধিক টাকার মালামাল উপহারসহ তাকে শ^শুর বাড়িতে তুলে দেন। বিয়ের পর থেকেই নানা কলহ শুরু করে গৃহবধূর শ^শুর বাড়ির লোকজন। প্রায় মারধরের শিকার হন শাহীনুর। এরপর স্বামী সোলায়মান শরীফসহ শাহীনুর চট্্রগ্রামে একটি পোশাক কারখানায় চাকুরি নেন। সেখানে চাকুরিরত অবস্থায় স্বামীসহ গত মঙ্গলবার সে গ্রামের বাড়ি এসে বাবার বাড়িতে বেড়াতে যায়। বুধবার সকালে মোবাইল ফোনে কল দিয়ে শাহীনুরকে তার স্বামী বাড়িতে আসতে বলে। গৃহবধূ শাহীনুর শ^শুর বাড়িতে আসামাত্রই অকথ্য গালিগালাজ করে স্বামী ও শ^শুর বাড়ির লোকজন। এক পর্য়ায় তাকে শ^শুর বাড়িতে গ্রহণ না করার হুমকি দিলে শাহীনুর প্রতিবাদ করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে স্বামী শ^শুর দেবর মিলে লাঠি দিয়ে বেদম পিটুনী দিয়ে ঘর থেকে বের করে। একপর্যায় তার দেবর জব্বার শরীফ ও রহীম শরীফ মিলে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর কখম করে। এতে শাহীনুরের বামহাতের কবজি কেটে যায়। এসময় প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে আহত গৃহবধূকে উদ্ধার করে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook
YouTube
error: Content is protected !!