মঠবাড়িয়ায় উপজেলা নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় আওয়ামীলীগ ও স্বতন্ত্র প্যানেলের পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন

মঠবাড়িয়া সংবাদদাতা : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় সদ্য সমাপ্ত উপজেলা নির্বাচন পরবর্তী নানা চলমান সহিংসতার ঘটনায় প্রতিপক্ষ আওয়ামীলীগ ও স্বতন্ত্র প্যানেলের প্রার্থীরা পরস্পরকে দায়ি করে পৃথক সংবাদ সম্মেলন করেছে।
সোমবার সকালে উপজেলা আওয়ামীলীগ শহরের দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে নৌকার সমর্থক কর্মীদের ওপর হামলার প্রতিবাদ জানান। অপরদিকে রবিবার রাতে স্বতন্ত্র প্যানেলের বিজয়ী প্রার্থীরা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচন পরবর্তী হামলা, অগ্নি সংযোগের ঘটনা সাজানো দাবি করে প্রতিবাদ জানান।

বিজয়ী স্বতন্ত্র উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সদস্য মো. রিয়াজ উদ্দিন আহম্মেদ লিখিত বক্তব্য পাঠ করে অভিযোগ করেন, গত ১৮ জুন অনুষ্ঠিত উপজেলা নির্বাচনে জনগন কর্তৃক নৌকার প্রার্থীকে প্রত্যাখানের পর পরাজিতরা হিন্দু বাড়ির খড়ের গাদায় আগুন, অফিস ভাংচুর, বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাংচুর ও মোটর সাইকেলে নিজেরা পরিকল্পিতভাবে আগুন দিয়ে তা সামাজিক সাইটে মিথ্যা প্রচারণা চালিয়ে বিজয়ী স্বতন্ত্র প্যানেলের কর্মী সমর্থকদের নামে সাজানো মামলা দিয়ে হয়রাণি করছে। নির্বাচন পরবর্তী আগুন,হামলা ও মিথ্যা মামলার প্রতিটি ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করে মিথ্যা, গুজব নাটকের অপবাদের তীব্র নিন্দা জানানো হয়। এসময় নব নির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান সিফাত ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান আইনজীবী নাসরিন জাহান, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ নেতারা ও দলীয় কর্মী সমর্থকরা উপস্থিত ছিলেন।

অপর দিকে উপজেলা আওয়ামীলীগ বিজয়ী স্বস্তন্ত্র প্যানেলের অভিযোগ প্রত্যাখান করে সোমবার সকালে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করেন। এতে উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক সেলিম মাতুব্বর লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করেন, স্বতন্ত্র প্যানেলের প্রার্থীরা নির্বাচনে বিএনপি জামায়তের সাথে আঁতাতের মাধ্যমে দলের বাইরে গিয়ে স্বতন্ত্র প্যানেলে নির্বাচনে অংশ নেয়। নির্বাচনে নানা কারসাজির মধ্যে তারা বিজয়ী হয়ে নৌকার সমর্থকদের বাড়ি ঘরে আগুন, অফিস ভাংচুর, বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাংচুর, সংখ্যালঘুদের বাড়ি ও খড়ের গাদায় অগ্নি সংযোগ, মা বোনদের শ্লীতাহানীসহ দলীয় নেতা কর্মীদের মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগ করে মঠবাড়িয়ায় সন্ত্রাসী জনপদ কায়েম করে। পরাজিত প্রার্থীরা নির্বাচন পরবর্তী আগুন,হামলা ও মিথ্যা মামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে প্রতিটি ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করে দোষীদের বিচারের দাবি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও পৌর মেয়র রফিউদ্দিন আহম্মেদ ফেরদৌস , পরাজিত ভাইসচেয়ারম্যান প্রার্থী সাকিল আহম্মেদ নওরোজ ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মাকসুদা আক্তার বেবী বক্তব্য দেন।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook
YouTube
error: Content is protected !!