জামাই ছোট জাতের তাই কোটি টাকা খরচ করে খুন।

ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যে গত শুক্রবার প্রকাশ্যে এক প্রকৌশলীকে হত্যা করার রহস্য অবশেষে উন্মোচিত হয়েছে। মেয়ের জামাই ছোটো জাতের বলে কোটি টাকা খরচে মাস্তান ভাড়া করে হত্যা করা হয় ওই প্রকৌশলীকে। হত্যাকাণ্ডে অংশ নেয় গুজরাটের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হারেন পান্ডিয়া হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্তরা। এরইমধ্যে অভিযুক্তদের আটক করা হয়েছে।

তেলেঙ্গানা পুলিশ জানায়, গ্রেফতার ব্যক্তিদের সঙ্গে পাকিস্তানের সামরিক গোয়েন্দা সংস্থারও (আইএসআই) যোগাযোগ রয়েছে। ঘটনার দিন তেলেঙ্গানার নালগোন্দায় ঘটে ওই হত্যাকাণ্ড। সেদিন প্রকাশ্যে রাস্তার ওপর চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয় তরুণ প্রকৌশলী প্রণয় কুমারকে (২৩)। ঘটনার সময় প্রণয়ের স্ত্রী অমরুথাভারসানি রাও (২২) উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু কিছু বোঝার আগেই প্রণয়কে কুপিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করে চলে যান হত্যাকারী।

পুলিশ ও নিহত ব্যক্তির স্ত্রীর বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, মূলত বর্ণবাদ থেকেই এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। পুলিশ বলছে, মেয়ের বাবাই এক কোটি রুপিতে খুনিদের ভাড়া করেছিলেন, যার ১৮ লাখ রুপি পরিশোধও করা হয়। ইতিমধ্যে মেয়ের বাবা ও এক চাচাকেও এ ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রণয় কুমার ও অমরুথাভারসানি রাও গত জানুয়ারিতে গোপনে বিয়ে করেন। কারণ, অমরুথাভারসানির পরিবার কোনোভাবেই তাদের সম্পর্ক মেনে নেয়নি।

সূত্র: আনন্দ বাজার পত্রিকা

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook
YouTube
error: Content is protected !!